নুহাশ পল্লী কিভাবে যাবো

হুমায়ূন আহমেদ বাংলাদেশের অন্যতম শ্রেষ্ঠ একজন কথা সাহিত্যিক। তার কথাতো আমরা সবাই বেশ ভালো করেই জানি। তার অনবদ্য একটি সৃষ্টি “নুহাশ পল্লী” । এটি তার কোনো সাহিত্য কর্ম নয়। নুহাশ পল্লী ঢাকার অদুরে গাজীপুরে অবস্থিত তার একটি বাগানবাড়ী । এটি গাজীপুর জেলা সদর থেকে প্রায় ২৫ কিলোমিটার দূরে পিরুজালী গ্রামে অবস্থিত। আজ নুহাশ পল্লী নিয়ে কথা বেশি লিখার কিছু নেই। তাই চলুন সরাসরি জেনে নিই কিভাবে যাবেন নুহাশ পল্লী , খরচ কেমন হবে এসব।

আমাদের এই ট্যুরটি ছিল ” চলো বাংলাদেশ ট্যুরস ”  গ্রুপের আয়োজনে। আপনারা চাইলে এই গ্রুপের সাহায্য নিতে পারেন যেকোনো ট্যুরে যেতে।

কখন যাবেন? 
সাধারন দর্শনার্থীদের জন্য এপ্রিল থেকে নভেম্বর মাস পর্যন্ত উম্মুক্ত থাকে নুহাশ পল্লী। ডিসেম্বর থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত পিকনিকের জন্য ভাড়া দেওয়া হয়। সেসময় স্কুল,কলেজ বা কোনো প্রতিষ্ঠানের পিকনিক ছাড়া সাধারন দর্শনার্থীরা নুহাশ পল্লীতে ঢুকতে পারেনা। তবে তার সমাধি দেখার জন্য সারা বছর যাওয়া যায়,এর ফটক বাইরে ।

 

nuhash polli tour

 

কিভাবে যাবেন?
ঢাকার যেকোনো প্রান্ত থেকে আপনাকে গাজীপুর চৌরাস্তা পার হয়ে হোতাপাড়া বাজার যেতে হবে। ঢাকা – ময়মনসিংহ মেইন রোডে এই হোতাপাড়া বাজার। প্রভাতি বনশ্রীসহ অনেক বাস আছে । হোতাপাড়া বাজার থেকে অটো রিক্সাতে করে যেতে হবে নুহাশ পল্লী। ঢাকা থ্বেকে হোতাপাড়া বাস ভাড়া ৫০-৮০ টাকা। আর হোতাপাড়া থেকে নুহাশ পল্লী অটো রিক্সা ভাড়া ৫০-৭০ টাকা। ( সিএনজি ১৫০ টাকা)

** তবে যদি ৫-১০ জনের গ্রুপ হয় তাহলে সবচেয়ে ভালো হয় ১ টি মাইক্রো ভাড়া করা। ভাড়া পরবে ৪৫০০-৬০০০ টাকা ।এতে আপনাদের সময় অনেক বাচবে এবং আরামে যেতে পারবেন। নুহাশ পল্লীতে মাইক্রো বা প্রাইভেটকার পার্ক করার যায়গা আছে। কোনো টাকা লাগবেনা। ড্রাইভার ফ্রিতে নুহাশ পল্লী ঢুকতে পারবে।

প্রবেশ মূল্য 
নুহাশ পল্লীতে প্রবেশ করতে জন প্রতি গুনতে হবে ২০০ টাকা করে। ১২ বছরের কম বয়সী বাচ্চাদের প্রবেশ করতে কোনো টাকা লাগেনা।

কি কি দেখবেন এবং কি খাবেন 
হুমায়ূন আহমেদের সমাধি, বৃষ্টি বিলাস, সুইমিং পুল, সবুজে ঘেরা বাগানবাড়ি , ট্রিহাউজ, লীলাবতি দিঘিসহ আরো অনেক কিছু। পরিবার ও বাচ্চাদের জন্য আদর্শ একটি যায়গা এটি।
নুহাশ পল্লীতে খাবার অর্ডার করা যায়। তবে দাম একটু বেশি। ২৫০ টাকা জন প্রতি খরচ হবে দুপুরের খাবারের জন্য। তাই যাবার সময় গাজীপুর চৌরাস্তা থেকে খাবার কিনে নিয়ে যাওয়াটা বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

থাকার ব্যবস্থা
নুহাশ পল্লীতে রাতে থাকার কোনো ব্যবস্থা নেই। তবে চাইলে দিনের বেলা ভূত বিলাসে ৩০০০-৫০০০ টাকায় থাকতে পারেন।

মোট খরচঃ
** যদি পাবলিক বাসে যানঃ
বাস ভাড়াঃ ৫০-৮০ টাকা
অটো রিক্সাঃ ৫০-৭০টাকা
প্রবেশ মূল্যঃ ২০০ টাকা
দুপুরের খাবারঃ ১২০-২০০ টাকা
সব মিলিয়েঃ ৪২০ – ৫৫০ টাকা

** আর যদি মাইক্রো/প্রাইভেট কার করে যান তাহলে খরচ হবে ৯০০-১২০০ টাকা

চাইলে আমাদের ট্যুরের ভিডিওটি ইউটিউব থেকে দেখতে পারেন ।
https://www.youtube.com/watch?v=6OIzdeu6Kz

 

যেকোনো ধরনের ভুল ত্রুটি ক্ষমা করবেন। চেষ্টা করেছি নুহাশ পল্লী ট্যুরের একটা ধারনা দিতে।

নুহাশ পল্লী কিভাবে যাবো

 

One Reply to “হুমায়ূন আহমেদের নুহাশ পল্লী ভ্রমণ , কিভাবে যাবেন ? খরচ কত ?”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.